বিনা প্রয়োজনে বেরলেই ধরপাকড় – চলছে জেলায় জেলায় এই কড়া লকডাউন

★বিশ্ব বাংলা নিউজ - সময়ের সাথে সবার পাশে - শেয়ার করুন★

স্টাফ্ রিপোর্ট, মুর্শিদাবাদ – বিশ্ব বাংলা নিউজ : এই লকডাউনে পর্বে সারাদিনই চলবে পুলিশি নজরদারি, আরও থাকছে এই লকডাউনের প্রথম দিনেই কড়াকড়িও মুর্শিদাবাদ জেলাতে। জেলার শহরের বিভিন্ন রাস্তায় চলছে নাকা তল্লাশি, প্রয়োজন ছাড়া গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বেরলেই চলছে ধরপাকড়। অন্য জেলা থেকে মুর্শিদাবাদ জেলা ঢোকার সমস্ত রাস্তা নজরদারির আওতায় রয়েছে। বাজার-দোকান বন্ধ, টহল দিচ্ছে পুলিশ ভ্যান।

বহরমপুর, কান্দী, জঙ্গীপুর, রঘুনাথগঞ্জ, নগর, রানীতলা, বেলডাঙা, নওদা, খড়গ্রাম -সহ মুর্শিদাবাদ জেলার বিভিন্ন জায়গায় একই ছবি ধরা পড়ছে। শুধু জেলার শহরে নয়, গ্রামেও পুলিশি নজরদারির রাশ আলগা হয়নি। রাস্তায় চলছে পুলিশি টহলদারি, রাজ্যের নয়া নির্দেশিকা অনুযায়ী সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে সপ্তাহে দু’দিন। আজ, সারাদিনই থাকবে পুলিশি নজরদারি, এ সপ্তাহে শনিবারও লকডাউন। আগামী সপ্তাহে বুধবার এবং আরও একটি দিন লকডাউন থাকবে রাজ্য জুড়ে।

এ দিন যাঁরা গাড়ি নিয়ে বেরচ্ছেন, তাঁরা কোথায় যাচ্ছেন, কী কারণে বেরিয়েছেন তা জানতে চাইছেন পুলিশকর্মীরা। দেখতে চাওয়া হচ্ছে পরিচয়পত্র। লকডাউনে শুধু মাত্র জরুরি পরিষেবার ক্ষেত্রে ছাড় রয়েছে। এক দিকে যেমন পথে নেমে নজরদারি চালানো হচ্ছে, জেলার সমস্ত থানা এলাকাতেই নাকা তল্লাশি চলছে। পড়শি জেলা থেকে মুর্শিদাবাদ জেলা ঢোকার মুখে সমস্ত গাড়িকে আটকানো হচ্ছে। প্রয়োজন ছাড়া কেউ এলে, তাঁকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে – মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশের বিশেষ বাহিনী রাস্তায়

নেমেছে। মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে বহরমপুরে, রঘুনাথগঞ্জ থানার আইসি র নেতৃত্বে রঘুনাথগঞ্জে ও কান্দী থানার আইসি অরূপ রায়ের নেতৃত্বে কান্দী শহর এলাকার অলিগতিতে ঢুকে পুলিশি টহল চলছে। লকডাউন ভাঙার অপরাধে পুলিশের হাতে আটক বহরমপুরে। বৃহস্পতিবার বহরমপুর গীর্জার মোড় বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় রাস্তা চলতি এবং দূর দূরান্ত থেকে আসা মানুষজন রাস্তায় ঘোরাঘুরি করা ও গাড়ির জন্য অপেক্ষা করে থাকা

মানুষজনদের লকডাউন ভাঙার অপরাধে আটক করা হয়। এদিন লকডাউন বাধ্যতামূলক করতে রাস্তায় নেমেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অনীশ সরকার সহ অন্যান্য পুলিশকর্মীরা। লকডাউন চলাকালীন যাঁরা গাড়ি নিয়ে বেরচ্ছেন, কিন্তু কোনও কারণ দেখাতে পারছেন না, তাঁদের নাম লিখে রাখা হচ্ছে জেলার বেশ কিছু থানা এলাকায়। লকডাউনের প্রথম দফার মতোই এ বারও ঠিক তেমনই পুলিশি কড়াকড়ি রয়েছে।

বহরমপুর, কান্দীতে ব্যাক্তিগত বাইকেও ব্যাপক ভাবে ধড়পাকড় চলছে। অনেক গাড়ি বাজেয়াপ্তও করা হচ্ছে, মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার পুলিশের পদস্থকর্তারাও নেমেছেন পথে। মুর্শিদাবাদের বহরমপুরেও বাজার-দোকান একেবারে বন্ধ, প্রতিটি রাস্তায় চলছে পুলিশি টহলদারি। কান্দীতেও রাস্তা ফাঁকা, সেখানে সকাল থেকেই বৃষ্টি চলছে। রেজিনগর, বেলডাঙাতেও পুলিশি নজরদারির রাশ আলগা করা হয়নি। বহরমপুরের খাগড়া বাজারের রাস্তাঘাট শুনশান, লকডাউনে বেসরকারি এবং সরকারি অফিস বন্ধ।

পরিবহণও বন্ধ, এ দিন রাস্তায় বাস-অটো-ট্রেকার তাই পথে নামেনি। জেলাতে গত কয়েক দিন ধরে প্রতি দিনই মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ফলে করোনা সংক্রমণ রুখতে ফের লকডাউনের পথেই যেতে হয়েছে রাজ্যের পাশা পাশি মুর্শিদাবাদ জেলাকেও, তাছাড়া এখন আর কোনো পথ নেই বলে জানিয়েছেন পুলিশ।